ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল লেখার নিয়ম [বিস্তারিত এখানে]

ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল লেখার নিয়ম : আপনি যদি একজন ব্লগার হয়ে থাকেন তবে আপনাকে আর্টিকেল লেখার নিয়ম জানতে হবে। আপনার যদি একটি ব্লগার প্লাটফর্মে ব্লক থাকে তবে এই আর্টিকেলটি আপনার জন্য।

আমরা এখানে আপনার সাথে আলোচনা করব কিভাবে ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল লিখতে হয়। ব্লগ আর্টিকেল লেখার নিয়ম। আপনি যদি এ বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য জানতে চান তবে আমাদের আর্টিকেলটি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত মনোযোগ সহকারে পড়ুন।

আপনার যদি একটি ব্লগার ব্লগ থেকে থাকে তবে সেখানে আপনি যে বিষয় নিয়েই বা যে টপিক নিয়েই আর্টিকেল লিখেন না কেন সেখানে সঠিকভাবে আর্টিকেল লিখতে হয় আমাদের মধ্যে অনেকেই আছে যারা ব্লগার ব্লগ আর্টিকেল লেখার নিয়ম জানেনা। তাই তাদের জন্য আমাদের ওয়েবসাইটে ব্লগ আর্টিকেল লেখার নিয়ম দেখানোর জন্য একটি পোস্ট প্রস্তুত করা হয়েছে।

আর্টিকেল কি ?

আপনি ব্লগে যে কোন ওয়েবসাইটে আর্টিকেল লিখতে হলে আপনাকে প্রথমে জানতে হবে আর্টিকেল কি। আমরা আপনাকে এই প্রশ্নের উত্তরটি আপনাকে সঠিকভাবে দেওয়ার চেষ্টা করবো মনে করুন আপনি একজন ব্লগার এবং আপনার একটি ব্লক ওয়েবসাইট রয়েছে সেখানে লেখালেখির কাজ করেন এখন আপনি যখন কোনো নির্দিষ্ট বিষয়কে কেন্দ্র করে ওয়েবসাইটে লেখালেখি করবেন তখন সেই কাজকেই বলা হয় আর্টিকেল।

যেমন আমাদের এই ওয়েবসাইটে যে লেখাগুলো পড়ছেন এগুলোই হচ্ছে আর্টিকেল। আশা করি আপনি আমাদের কথা অনুযায়ী বুঝতে পেরেছেন আর্টিকেল কি।

ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল লেখার নিয়ম [বিস্তারিত এখানে]
ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল লেখার নিয়ম [বিস্তারিত এখানে]
বর্তমানে অনেক ব্লগাররা বিভিন্ন ধরনের ওয়েব সাইটে বিভিন্ন ধরনের নিস নিয়ে কাজ করা থাকে। আপনি যদি ব্লগে শিক্ষা বিষয়ক টপিক নিয়ে লেখালেখির কাজ করেন তবে সেই সকল লেখাকেই বলা হয় আর্টিকেল।

ব্লগে আর্টিকেল লেখার নিয়ম

আপনি উক্ত আলোচনার মাধ্যমে জানতে পেরেছেন আর্টিকেল কি। এখন আমরা আপনাকে জানাবো আর্টিকেল লেখার নিয়ম কি। আমাদের এই ওয়েবসাইটে কিছু পোস্ট করা রয়েছে যেগুলো পড়ার মাধ্যমে আপনি জানতে পারবেন কোয়ালিটি সম্পন্ন কিভাবে আর্টিকেল লিখতে হয়।

আপনি যদি ব্লগে আর্টিকেল লেখার নিয়ম জানতে চান তবে আমরা এখানে সংক্ষিপ্তাকারে কিছু টিপস আপনাকে বলব সেগুলো অনুসরণ করে আপনি ব্লগের জন্য সঠিক নিয়মে আর্টিকেল লিখতে পারবেন।

যেমন- ব্লগ আর্টিকেল লেখার টপিকঃ আপনি যে বিষয়ে ওপর নির্ভর করে ব্লগ আর্টিকেল লিখবেন তাকে বলা হয় আর্টিকেল টপিক যখন আপনি ব্লগে আর্টিকেল লিখবেন তখন সবার আগে আপনাকে খুঁজে নিতে হবে আপনি আসলে কোন টপিকের উপর আর্টিকেল লিখতে চাচ্ছেন।

আপনি ব্লগে যে বিষয় নিয়ে আর্টিকেল লিখবেন সেই  আর্টিকেল এর ফোকাস কিওয়ার্ড খুঁজে বের করতে হবে তখন আপনাকে কিওয়ার্ড খুজে বের করার পর দেখতে হবে মানুষ কোন টপিকের উপর বেশি সার্চ করে থাকে। মানুষ যে সকল টপিকের ওপর বেশি বেশি সার্চ করে থাকে সেই সকল টপিক নিয়ে আপনাকে আর্টিকেল লিখতে হবে।

আপনি যখন ব্লগে আর্টিকেল লিখবেন তখন আপনাকে একটি বিষয় খেয়াল রাখতে হবে সেটি হচ্ছে আপনি যে টপিক নিয়ে আর্টিকেল লিখতে যাচ্ছেন সেই টপিকের উপর কতগুলো শব্দ লিখবেন। তবে ব্লগে আর্টিকেল লেখার জন্য সর্বনিম্ন 600 ওয়ার্ড অবশ্যই লিখতে হবে তা না হলে আপনার আর্টিকেলটি লভেলু কন্টেন হিসেবে পরিণত হবে।

আপনি যদি ব্লগে নির্ধারিত আর্টিকেল এর উপর 600 ওয়ার্ড থেকে শুরু করে 2000 পর্যন্ত আর্টিকেল লিখতে পারলে আপনার লেখাটি গুগলে স্থায়ীভাবে অবস্থান করবে। তাই সব সময় চেষ্টা করবেন যে টপিক নিয়ে আপনি আর্টিকেল লিখতে যাচ্ছেন সেটি অনেক বড় করে লেখা।

ব্লগার ব্লগে কিভাবে আর্টিকেল লিখতে হয় ?

আপনি যখন ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল লিখবেন তখন অবশ্যই এসইও ফ্রেন্ডলি আর্টিকেল লেখার চেষ্টা করবেন কারণ আপনি যদি আপনার লেখার সার্চ ইঞ্জিন গুলোতে টপ পজিশন নিয়ে আসতে চাইবেন তখন অবশ্যই আপনার লেখাটি এসইও ফ্রেন্ডলি হতে হবে।

ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল লেখা শুরু করার জন্য আপনাকে প্রথমে blogger.com সার্চ করে আপনার ড্যাসবোর্ডের প্রবেশ করতে হবে। সেখানে নিম্নোক্ত ছবিতে দেওয়া আর্টিকেল রিলেটেড অপশন গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা থাকতে হবে।

ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল লিখার নিয়ম

আপনি যখন ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল লিখতে যাবেন তখন অবশ্যই উক্ত ছবিতে দেওয়া যে অপশন গুলো রয়েছে সেই বিষয়গুলোর প্রতি বিশেষভাবে ধারণা থাকতে হবে কারণ এসকল অপশন ব্যবহার করে আপনার আর্টিকেল লেখা সম্পন্ন করতে হবে।

তাই আমরা আপনার সুবিধার জন্য এখানে ব্লগার ড্যাশবোর্ড এর নতুন আর্টিকেল লেখার জন্য যে সকল অপশন ব্যবহার করতে হয় সেগুলো আপনাকে দেখাবো। তার জন্য নিচে দেওয়া তথ্যগুলো দেখুন-

১। আর্টিকেল টাইটেল

আপনি যখন ব্লগার ব্লগে কোন টপিকের উপর আর্টিকেল লিখবেন তখন সবার আগে টাইটেল নামে একটি অপশন দেখতে পাবেন সেখানে আপনি যে বিষয়ে আর্টিকেল লিখবেন সেটি সেখানে আকর্ষণের টাইটেল হিসেবে লিখতে হবে।

যেমন আজ আমরা আপনাকে একটি আর্টিকেল শেয়ার করেছি সেটির নাম হচ্ছে “ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল লেখার নিয় “ ঠিক এরকম ভাবে আপনাকে ব্লগার ব্লগের জন্য আর্টিকেল টাইটেল বাছাই করে নিতে হবে।

০২। এইচটিএমল/কম্পোজিং [Html/Composing]

আপনি যখন ব্লগার ব্লগে টাইটেল লিখবেন তারপর নিচে একটি অপশন দেওয়া রয়েছে কলম এর মত সেখানে ক্লিক করলে আপনাকে দুইটি অপশন দেখাবে একটি হচ্ছে এইচটিএমএল অন্যটি হচ্ছে কম্পোজিং।

আপনি যদি এইচটিএমএল মুডে কাজ করেন তাহলে আপনাকে কোডিং দিয়ে কাজ করতে হবে, বর্তমানে যারা ব্লগারে আর্টিকেল লিখে তারা কিন্তু এইচটিএমএল মুডে কাজ করতে সেরকম লিখতে পারে না তাই যারা ব্লগ আর্টিকেল লিখে তারা সকলেই  কম্পোজিং মুডে আর্টিকেল লিখে। আপনার ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল লেখার সময় অবশ্যই সবসময় কম্পোজিং মোড সিলেক্ট করে রাখবেন।

আপনি যখন ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল লিখবেন তখন কম্পোজিং সিলেক্ট করে রাখবেন তাহলে আপনি বাংলা লিখুন আর ইংরেজি লেখা সেই লেখা গুলো আপনি দেখতে পারবেন এবং দেখে দেখে লিখতে পারবেন।

ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল লেখার জন্য গুরুত্বপূর্ণ কিছু অপশন

Undo এবং Redo : আপনি যখন ব্লগার ব্লগে লেখার সময় হঠাৎ করে কোন লেখা বা পুরো লেখা ভুল করে সিলেক্ট করে কেটে ফেলেন তখন অনেক সমস্যা হতে পারে তাই আপনি undo/redo ব্যবহার করে সহজেই ডিলিট হওয়া লেখাটি সহজেই ফিরিয়ে আনতে পারবেন undo এর মাধ্যমে।

যেকোনো টাইপিং কাজে কোন কিছু ভুল হওয়ার সময় সেগুলো ঠিক করার জন্য অবশ্যই Undo ব্যবহার করতে হয়। আর যখন কোন বিষয়ের উপর অতিরিক্ত ভুল হয়ে যায় তখন আপনাকে অবশ্যই Redo পূর্বের অবস্থায় যাওয়া যায়। তাই ব্লগে লেখার সময় এই দুইটি অপশন আপনাকে অনেক সহযোগিতা করবে।

Font Type : আপনি যখন ব্লগে লিখবেন তখন লেখাগুলো কাস্টোমাইজ করার জন্য ফন্ট টাইপ অপশনটি ব্যবহার করতে হবে অর্থাৎ আপনি যখন ব্লগার ব্লগ আর্টিকেল লিখবেন তখন বিভিন্ন ধরনের ফন্টে লেখাগুলো রূপান্তর করতে পারবেন।

Font Size : আপনি যখন ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল লিখবেন তখন font-size অপশনটি ব্যবহার করে আপনার লেখাগুলো সাইজ পরিবর্তন করতে পারবেন যেমন আপনার অনেক সময় প্রয়োজন পড়বে কিছু হেডলাইন বড় করে লেখার আপনি যেকোন হিডিং বড় করার জন্য font-size ব্যবহার করতে পারবেন।

Bold : আপনি যখন ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল লিখবেন তখন বিভিন্ন হেডিং এর লেখাগুলো স্বাভাবিকের চেয়ে একটু বেশি গাড়ো করার প্রয়োজন হবে সেই কাজটি আপনি বোল্ট মাধ্যমে করতে পারবেন। আপনার যে লেখাটি Bold মানে মোটা করা দরকার সে লেখাটা সিলেক্ট করে (B) Bold এ ক্লিক করে মোটা করে নিতে পারবেন খুব সহজেই।

Etalic : আপনি যখন ব্লগার ব্লগের কোন লেখা লিখবেন তখন সেই লেখাটি আপনার ভিজিটরদের সুন্দর করে দেখানোর জন্য স্টাইল করে দিতে পারেন ইটালিয়ান ভাষায়। আপনি যখন কোন লেখা ইটালিক করে লিখতে চাইবেন তখন আপনাকে অবশ্যই অপশনে ক্লিক করতে হবে। আপনার জেলেখালি করতে চান সেই লেখাটি সিলেক্ট করে (I) অপশনে ক্লিক করেইটালিয়ান করে নিতে পারবন।

Underline : আপনি যখন ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল লিখবেন তখন আপনার বিভিন্ন লেখার মাঝে বা কোন হেডিং এর মাঝে আন্ডার লাইন দিতে হবে। আন্দামানে হচ্ছে কোন নির্দিষ্ট লেখার নিচে দাগ দেওয়া যেমন এরকম আন্ডারলাইন। আপনি যদি কোন লেখার নিজদিয়ে দাগ দিতে চান তবে আপনাকে অবশ্যই আন্ডারলাইন অপশনে ক্লিক করতে হবে। যে লেখাটি আন্ডার লাইন দিতে চাইবেন সে লেখা টি সিলেক্ট করে (U) অপশন এ ক্লিক করে আন্ডারলাইন করে নিতে পারবেন।

Text Color : আপনার যখন ব্লগার ব্লগের কোন লেখা আপনার প্রয়োজনীয় কালার ব্যবহার করতে চাইবেন তখন আপনাকে অবশ্যই টেক্সট কালার অপশনে ক্লিক করতে হবে। সেখানে ক্লিক করার পর আপনার ইচ্ছামতো যেকোনো কালার দিতে পারবেন যেমন- লেখা কালার। আপনি যখন ব্লগে আর্টিকেল দেখবেন তখন বিভিন্ন সময় আপনার এরকম কালার প্রয়োজন হবে কালার নেওয়ার জন্য আপনাকে টেক্সট কালার অপশনে ক্লিক করে আপনার যে কালার প্রয়োজন সেটি করতে পারবেন।

Insert link : আপনি যখন ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল দেখবেন তখন আপনাকে বিভিন্ন ধরনের লিঙ্ক যুক্ত করতে হবে। যেমন আমাদের ওয়েবসাইটের আর্টিকেল অনুযায়ী একটি লিংক শেয়ার করব তার জন্য আমাদের অবশ্যই একটি লিংক সেট করে দিতে হবে যেমন-

আকর্ষণীয় আর্টিকেল লেখার নিয়ম। আপনি যে কালারিং লেখাটি দেখতে পাচ্ছেন সেটি হচ্ছে একটি লিংক সেখানে ক্লিক করলে আপনাকে সেই লিঙ্ক অনুযায়ী ওয়েবসাইটে নিয়ে যাওয়া হবে। আপনি ইনসার্ট লিংকের মাধ্যমে শুধু আর্টিকেল নয় এখানে আপনি বিভিন্ন ধরনের ইমেজ ভিডিও ইত্যাদি লিংক প্রস্তুত করতে পারবেন।

Insert video : আমরা যখন ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল লিখে থাকে তখন আমাদের আর্টিকেল রিলেটেড কিছু ভিডিও যুক্ত করতে হয় আপনি যদি ব্লগার ব্লগ আর্টিকেল এর মাঝে ভিডিও যুক্ত করতে চান তবে আপনাকে অবশ্যই ইনসার্ট ভিডিও অপশন এ ক্লিক করতে হবে।

অপশনে ক্লিক করার পর আপনার ডিভাইসের মেমোরি স্টরেস সামনে চলে আসবে সেখান থেকে আপনার প্রয়োজনীয় ভিডিওটি আপলোড করে দিতে পারবেন।

Left, Right, Center and justify : আপনি যখন ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল লিখবেন তখন লেফট, রাইট, সেন্টার এবং জাস্টিফাই এর উপর বিশেষভাবে নজর রাখতে হবে।

আপনি যখন ব্লগ আর্টিকেল লিখবেন তখন আপনার লেখাগুলো সব সময় লেফট মানে বাম পাশে থেকে শুরু হবে। আর্টিকেল লেখার সময় অনেক লেখা রয়েছে যেগুলো আপনাকে সেন্টার করতে হয় যেমন সেন্টার মানে হচ্ছে কোন লেখা পেজের একদম মাঝখানে নিয়ে যাওয়া।

আপনি যখন লেখাটি মাঝখানে নিতে চাইবেন তখন সেন্টার অপশন এ ক্লিক করে অবশ্যই আপনি যে লেখাটি এর মাঝখানে দিতে চাচ্ছেন সে লেখা টি সিলেক্ট করে সেন্ড অপশনে ক্লিক করবেন অটোমেটিকলি আপনার লেখাটি পেজের মাঝ বরাবর চলে যাবে।

আমরা যখন ব্লগ আর্টিকেল লিখে তখন লেখাগুলো প্যারাগ্রাফ আকারে লিখে থাকি কিন্তু আমাদের লেখাগুলো বাম সাইডের ডান সাইডে এলোমেলো থাকে। আপনি যখন প্যারাগ্রাফের চতুর সাইট সমান করতে চাইবেন তখন আপনার জাস্টিফাই করা প্রয়োজন হবে। আপনি যে প্যারাগ্রাফটি জাস্টিফাই করতে চাইছেন এই লেখা টি সিলেক্ট করে আপনাকে জাস্টিফাই অপশনে গিয়ে সেখানে ক্লিক করলেই অটোমেটিকলি আপনার প্যারাগ্রাফের বাম সাইড এবং ডান সাইড অটোমেটিক লেখা হয়ে যাবে মানে সমপরিমাণ হয়ে যাবে।

Bulleted point list : আপনি এখানে অনেক ধরনের অপশন পেয়ে যাবেন যেমন নাম্বারিং, চিহ্ন, Quiter Text ইত্যাদি। আপনার যখন ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল লিখবেন তখন আপনাকে অনেক বিষয়ে বোঝানোর জন্য অবশ্যই নাম্বারিং এবং চিহ্ন ব্যবহার করতে হবে যেগুলো আপনি ব্যবহার করলে আপনার ভিজিটররা সঠিকভাবে বুঝতে পারবে আপনি কি বুঝাতে চাচ্ছেন। তাই আপনার উচিত এসকল নাম্বারিং এবং চিহ্ন ব্যবহার করা।

আপনার যখন ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল লেখার কাজ শেষ হবে তখন আপনাকে অবশ্যই ব্লগার ওয়েবসাইটে ডান পাশে থাকা অপশন গুলো সঠিকভাবে পূরণ করতে হবে যেমন-

আপনি যে বিষয়ে আর্টিকেল লিখেছেন সেই বিষয়ে একটি লেভেল সিলেক্ট করে দিতে হবে, আমাদের ওয়েবসাইটের পোস্ট হচ্ছে ব্লগার ব্লগ আর্টিকেল লেখার নিয়ম তাই আমরা এখানে সিলেট করে দিয়েছি “ব্লগিং”।

তারপর আপনাকে আরো একটি কাজ করতে হবে সেটি হচ্ছে পার্মালিনক, আপনার ব্লগার ব্লগে যে আর্টিকেল লিখবেন সেই আর্টিকেল অনুযায়ী আপনাকে একটি পার্মালিংক সেট করে দিতে হবে যেমন- “blogger-article-writing”

তারপর আপনাকে নিচের দেয়া আরো একটি তথ্য পূরণ করতে হবে সেটি হচ্ছে সার্চ ডিসক্রিপশন। এখানে আপনার আর্টিকেল অনুযায়ী বিস্তারিত কিছু তথ্য যুক্ত করে দেবেন যাতে করে আপনার আর্টিকেল রিলেটেড তথ্য থাকে।

আর্টিকেল লেখার পর যে সকল অপশন সম্পন্ন করতে হয় তা বোঝার জন্য আপনাকে একটি ছবি আপনার সুবিধার জন্য নিচে প্রস্তুত করে দিয়েছি সেই অনুযায়ী আপনার তথ্য গুলো পূরণ করতে হবে।

আপনি যদি আমাদের দেওয়া তথ্যগুলো সঠিকভাবে অনুসরণ করে থাকেন তবে আপনিও ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল লেখার নিয়ম সঠিকভাবে জানতে পেরেছেন আপনি যদি উক্ত বিষয় গুলো সঠিকভাবে অনুসরণ করতে পারেন তবে আপনিও কোয়ালিটি সম্পন্ন আর্টিকেল লিখতে পারবেন।

শেষ কথাঃ

তো বন্ধুরা আজ আমাদের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে শিখতে পারেন কিভাবে ব্লগার ব্লগ আর্টিকেল লিখতে হয় এবং ব্লগে আর্টিকেল লেখার নিয়ম কি। আমাদের দেওয়া তথ্যগুলো আপনি যদি step-by-step অনুসরণ করে ব্লগার ব্লগ আর্টিকেল লিখেন তবে আশা করা যায় আপনিও আকর্ষণীয়ভাবে একটি আর্টিকেল লিখতে পারবেন।

ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল লেখার নিয়ম [বিস্তারিত এখানে] ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল লেখার নিয়ম [বিস্তারিত এখানে] ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল লেখার নিয়ম [বিস্তারিত এখানে] ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল লেখার নিয়ম [বিস্তারিত এখানে] ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল লেখার নিয়ম [বিস্তারিত এখানে] ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল লেখার নিয়ম [বিস্তারিত এখানে] ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল লেখার নিয়ম [বিস্তারিত এখানে] ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল লেখার নিয়ম [বিস্তারিত এখানে] ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল লেখার নিয়ম [বিস্তারিত এখানে] ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল লেখার নিয়ম [বিস্তারিত এখানে] ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল লেখার নিয়ম [বিস্তারিত এখানে] ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল লেখার নিয়ম [বিস্তারিত এখানে] ব্লগার ব্লগে আর্টিকেল লেখার নিয়ম [বিস্তারিত এখানে]

আমাদের ওয়েবসাইটের আর্টিকেলটি করার ফলে আপনি যদি উপকৃত হন তবে এ বিষয়টি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন না। আমাদের ওয়েবসাইটে অনলাইনে আয় করার সকল বিষয়ক তথ্য আপলোড করা হয়। আমাদের ওয়েবসাইটের সাথে থাকার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

Leave a Comment