ক্যাপচা এন্ট্রি করে আয় জনপ্রিয় ও সহজ সাইট [বিস্তারিত দেখুন]

হ্যালো! কেমন আছেন সকল দর্শক বন্ধুগণ আশা করি ভালো আছেন। আজ আমি আপনাদের সাথে আলোচনার করবো ক্যাপচা এন্ট্রি করে আয় করার সকল সহজ পদ্ধতি। আপনি যদি নিজের ঘরে বসে কাজ করতে চান তবে ক্যাপচা এন্ট্রি করে আয় করতে পারবেন।

আমাদের এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার জন্য আপনাকে স্বাগতম। আমাদরে এই ওয়েবসাইটে অনলাইন ইনকাম করার সকল প্রক্রিয়া একদম বিনামূল্যে শেয়ার করা হয়। আপনারা যদি বিনামূল্যে টাকা খরচ করা ছাড়া অনলাইন কাজ শিখতে চান তবে আমাদের এই ওয়েবসাইট নিয়মিত ভিজিট করুন। ক্যাপচা এন্ট্রির শিখতে নিচের অংশ গুলো মনযোগ দিয়ে পড়ুন।

বর্তমানে অনলাইন ইনকাম করার মধ্যে জনপ্রিয় মাধ্যম হলো ক্যাপচা এন্ট্রি। উপরিউক্ত ক্যাপচা এন্ট্রি করার জন্য তেমন বেশি অভিজ্ঞতা বা শিক্ষাগত যোগ্যতার দরকার হয় না। কিন্তু ক্যাপচা এন্ট্রি করার জন্য কম্পিউটার টাইপিং এর গতি বেশি হতে হবে।

টাইপিং স্পিড বাড়ানোর কারণ হলো আপনি যত তারা তারি ক্যাপচা টাইপিং করতে পারবেন তত বেশি টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

আপনি যদি ক্যাপচা এন্ট্রি করে অনলাইন ইনকাম করতে চান তবে তার জন্য আপনার দরকার হবে কম্পিউটার, ল্যাপটপ কিংবা স্মার্ট মোবাইল ফোন। আপনাদের কাছে উক্ত যে কোন একটি ডিভাইস থাকলেই হবে। এক্ষেত্রে স্মার্ট মোবাইল ফোন দিয়ে ইনকাম করতে আপনার সুবিধা হবে।

উপরিউক্ত ক্যাপচা এন্ট্রি ঘরে বসে অবসর সময়ে করতে পারবেন এখানে অন্যান্য কাজের মতো অতিরিক্ত সময় ব্যয় করতে হয় না। তবে নিয়মিত ভাবে প্রতি দিন ২-৩ ঘন্টা করে কাজ করলেই প্রতি মাসে প্রায় ১০,০০০/- থেকে ২০,০০০/- টাকা আয় করতে পারবেন।

উপরিউক্ত আয়ের পরিমাণ বৃদ্ধি পাবে আপনার হাতের টাইপিং এর উপর নির্ভর করে। আপনি যত বেশি দ্রুত টাইপ করেত পারবেন তত বেশি টাকা আয় করতে পারবেন।

তো চলুন জেনে নেওয়া যাক “ক্যাপচা এন্ট্রি” করে আয় করা যায়। এবং ক্যাপচা কোড কি? এ বিষয়ে জানতে নিচের অংশ গুলো মনযোগ দিয়ে পড়ুন।

ক্যাপচা কোড কি?

আমরা যখন গুগলে কোন কিছু সার্চ করতে যায় তখন কিছু ছবির মতো বা সংখ্যার মতো একটি বক্স টাইপ করার জন্য বলা হয়।

যেমন: আপনাকে বুঝানোর জন্য বলছি আপনার যখন কোন পরীক্ষার রেজাল্ট চেক করেন তখন রোল নম্বর, রেজিঃ নম্বর, পরীক্ষার বছর ইত্যাদি তথ্য পুরণ করার পরে সাবমিট দেওয়ার আগে একটি ক্যাপচা কোড সংখ্যা বা ছবি দেওয়া থাকে সেটি পড়ুন করার পর ফলাফল দেখা যায়।

উপরিউক্ত কাজ গুলোও ঠিক এরকমই। নিচের অংশে আমি ক্যাপচা কোডের ছবি কারে আপনাকে দেখাবো।

ক্যাপচা এন্ট্রি করে আয় করার উপায়
ক্যাপচা এন্ট্রি করে ইনকাম করার উপায়

CAPTCHA

উপরের লেখাটি এই অংশে লিখতে হবে তার পরে সাবমিট। এভাবেই ক্যাপচা কোড পূরণ করতে হয়।

Submit

উপরিউক্ত ছবির অংশ দেখে হয়তো বুঝতে পেরেছেন এইটিই ক্যাপচা কোড। যা পূরণ করা একদম সহজ কাজ। ক্যাপচাতে যা থাকবে তা সঠিক ভাবে পূরণ করে দিলেই কাজ হয়ে যায়।

ক্যাপচা কোডের ছবির মতো এমন অক্ষর যে গুলো অস্পষ্ট থাকবে সেই অস্পষ্ট লেখা গুলো নিচে থাকা একটি খালি বক্সে ক্যাপচা কোড পূরণ করা। আপনি হয়তো এখন সহজ ভাবে বুঝতে পেরেছেন ক্যাপচা কোড কী।

ক্যাপচা এন্ট্রি পূরণ করার কাজ

আপনারা হইতো জেনে গিয়েছেন ক্যাপচা এন্ট্রি কি? এখন সময় কিভাবে ক্যাপচা পূরণ করে অনলাইন এর মাধ্যমে টাকা ইনকাম করবেন। তবে চলুন বিস্তারিত আলোচনায় যাওয়া যাক। আমি আপনাকে আগেই বলেছি যে ক্যাপচা কোড পূরণ করা একদম সহজ। তবে কোথায় পাবেন এই ক্যাপচা কোড পূরণ করার কাজ।

ক্যাপচা এন্ট্রি করার কাজ করতে হবে আপনাকে খুজে বের করতে হবে অনলাইনে কোন কোন ওয়েবসাইট ক্যাপচা পূরণের জন্য কাজ দিয়ে থাকে। কোন কোন ওয়েবসাইট ক্যাপচা কোড পূরণ করার কাজ দেই সেই সকল ওয়েবসাইটের সাথে দেখা করিয়ে দিবো আমাদের এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে।

ক্যাপচা এন্ট্রি কাজের জন্য কি করতে হবে?

ক্যাপচা এন্ট্রির কাজ শুরু করার জন্য আপনাকে অবশ্যই কোন ক্যাপচা সলভিং ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে একাউন্ট তৈরি করে নিতে হবে। যে সকল ওয়েবসাইটে ক্যাপচা কোড নিয়ে কাজ করা যায় সেই সকল ওয়েবসাইট নিচের অংশ প্রস্তুত করা আছে।

আপনি যখন কোন ওয়েবসাইটে ক্যাপচা কোড এর কাজ করবেন সেখানে আপনাকে অনেক ধরণের অস্পষ্ট লেখা বা সংখ্যা দেওয়া হবে সেগুলো আপনাকে সঠিক ভাবে ক্যাপচা বক্সে পূরণ করতে হবে। উপরিউক্ত কাজ যদি আপনি নিয়মিত প্রতি দিন ০২ থেকে ০৩ ঘন্টা কাজ করেন এবং এভাবে যদি ১০০০ টি ক্যাপচা এন্ট্রি করতে পারেন তবে প্রতি ঘন্টায় ২ ডলার থেকে ৩ ডলার ইনকাম করতে পারবেন।

আপনারা ক্যাপচা কোড পূরণ করে যে ডলার ইনকাম করবেন সেই টাকা PayPal, Web money, রকেট, বিকাশের মাধ্যমে আপনার একাউন্টে নিতে পারবেন।

আপনার যদি আগ্রহ থাকে ক্যাপচা এন্ট্রি করে ইনকাম করার তবে আপনার প্রয়োজন হবে ভালো কিছু ক্যাপচা এন্ট্রি ওয়েবসাইট। আপনারা অনলাইনে গুগলের মাধ্যমে অনেক প্রকার ক্যাপচা সলভিং ওয়েবসাইট পাবেন। কিন্তু একটি সমস্যা আছে অনেক ওয়েবাসাইট আছে যে গুলোতে কাজ করার ফলে পেমেন্ট পাবেন না। মানে অনেক ওয়েবসাইট ফ্যাক।

তবে চিন্তা করার কোন কারণ নেই। আপনাদের জন্য আমি কিছু সঠিক ওয়েবসাইট বেছে নিয়েছি যে গুলোতে কাজ করলে আপনি অনলাইনে ক্যাপচা এন্ট্রি করে টাকা ইনাকাম করতে পারবেন।

আরও পড়ুন:

ক্যাপচা এন্ট্রি করার ওয়েবসাইট

Koloti bablo (KB) | ক্যাপচা এন্ট্রি ওয়েবসাইট রেজিস্ট্রার করুন।

উপরিউক্ত ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ক্যাপচা এন্ট্রি কাজ করতে চাইলে গুগলে সার্চ করে এখনই রেজিস্ট্রেশন করে ফেলুন। এই ওয়েবসাইটে সুবিধা হলো আপনি যদি ১০০০ টি ক্যাপচা কোড পূরণ করতে পারেন তবে তার বিনিময়ে আপনাকে দেওয়া হবে ০১ ডলার বা তারও বেশি। বাংলাদেশি টাকায় ০১ ডলারের দাম হলো ৮৫/- টাকা। আপনি যদি এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ক্যাপচা এন্ট্রি শুরু করতে চান তবে প্রতি মাসে ঘরে বসেই ১০০ থেকে ২০০ ডলার ইনকাম করতে পারবেন।

2Captcha | ক্যাপচা এন্ট্রি ওয়েবসাইট রেজিস্ট্রার করুন।

উপরিউক্ত ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ক্যাপচা এন্ট্রি কাজ করতে চাইলে গুগলে সার্চ করে এখনই রেজিস্ট্রেশন করে ফেলুন। এই ওয়েবসাইটে সুবিধা হলো আপনি যদি ১০০০ টি ক্যাপচা কোড পূরণ করতে পারেন তবে তার বিনিময়ে আপনাকে দেওয়া হবে ০১ ডলার থেকে ২ ডলার। বাংলাদেশি টাকায় ০১ ডলারের দাম হলো ৮৫/- টাকা। আপনি যদি এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ক্যাপচা এন্ট্রি শুরু করতে চান তবে প্রতি মাসে ঘরে বসেই ১০০ থেকে ২০০ ডলার ইনকাম করতে পারবেন।

CaptchaTypers | ক্যাপচা এন্ট্রি ওয়েবসাইট রেজিস্ট্রার করুন।

উপরিউক্ত ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ক্যাপচা এন্ট্রি কাজ করতে চাইলে গুগলে সার্চ করে এখনই রেজিস্ট্রেশন করে ফেলুন। এই ওয়েবসাইটে সুবিধা হলো আপনি যদি ১০০০ টি ক্যাপচা কোড পূরণ করতে পারেন তবে তার বিনিময়ে আপনাকে দেওয়া হবে ০১ ডলার বা তারও বেশি। বাংলাদেশি টাকায় ০১ ডলারের দাম হলো ৮৫/- টাকা। আপনি যদি এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ক্যাপচা এন্ট্রি শুরু করতে চান তবে প্রতি মাসে ঘরে বসেই ১০০ থেকে ২০০ ডলার ইনকাম করতে পারবেন।

MegaTypers | ক্যাপচা এন্ট্রি ওয়েবসাইট রেজিস্ট্রার করুন।

উপরিউক্ত ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ক্যাপচা এন্ট্রি কাজ করতে চাইলে গুগলে সার্চ করে এখনই রেজিস্ট্রেশন করে ফেলুন। এই ওয়েবসাইটে সুবিধা হলো আপনি যদি ১০০০ টি ক্যাপচা কোড পূরণ করতে পারেন তবে তার বিনিময়ে আপনাকে দেওয়া হবে ০১ ডলার বা তারও বেশি। বাংলাদেশি টাকায় ০১ ডলারের দাম হলো ৮৫/- টাকা। আপনি যদি এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ক্যাপচা এন্ট্রি শুরু করতে চান তবে প্রতি মাসে ঘরে বসেই ১০০ থেকে ২০০ ডলার ইনকাম করতে পারবেন।

Captcha2Cash | ক্যাপচা এন্ট্রি ওয়েবসাইট রেজিস্ট্রার করুন।

উপরিউক্ত ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ক্যাপচা এন্ট্রি কাজ করতে চাইলে গুগলে সার্চ করে এখনই রেজিস্ট্রেশন করে ফেলুন। এই ওয়েবসাইটে সুবিধা হলো আপনি যদি ১০০০ টি ক্যাপচা কোড পূরণ করতে পারেন তবে তার বিনিময়ে আপনাকে দেওয়া হবে ০১ ডলার। বাংলাদেশি টাকায় ০১ ডলারের দাম হলো ৮৫/- টাকা। আপনি যদি এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ক্যাপচা এন্ট্রি শুরু করতে চান তবে প্রতি মাসে ঘরে বসেই ২০০ থেকে ৩০০ ডলার ইনকাম করতে পারবেন।

উপরিউক্ত ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আপনারা প্রতি মাসে অনেক টাকা ইনকাম করতে পারবেন। তবে উপরিউক্ত যে কোন একটি ওয়েবসাইটে কাজ করবেন কারণ সবটিতে যদি কাজ শুরু করে দেন তবে টাকা ইনকাম করা তো দূরের কথা ঠিক ভাবে কাজই করতে পারবেন না।

উপরের সকল ওয়েবসাইটের লিংক তালিকাঃ

তাই যে কোন একটি ওয়েবসাইট নিয়ে কাজ শুরু করতে হবে। আর একটিতে লেগে থাকলে আপনি নিয়মিত প্রতি দিন ২-৫ ডলার টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

শেষ কথাঃ

ঘরে বসে টাকা আয় করতে হলে আপনাকে একই কাজটি বেছে নিতে হবে। এই কাজের জন্য আপনাকে কোন প্রকার টাকা ইনভেস্ট করতে হবে না। বিনা খরচে অনলাইনের মাধ্যমে ক্যাপচা এন্ট্রি করে আয় করতে পারবেন।

আমাদের এই ওয়েবসাইটের পোস্ট পড়ার জন্য ধন্যবাদ। আমাদের এই পেজে অনলাইন ইনকমা থেকে শুরু করে চাকরির স্কুল কলেজ, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়েল রেজাল্ট চেক করতে পারবেন। সকল তথ্য এক সাথে জানার জন্য ভিজিট করুন expartjobs.com.

Leave a Comment