ইনভেস্ট ছাড়া অনলাইনে আয়ের জনপ্রিয় উপায় [বিস্তারিত এখানে]

ইনভেস্ট ছাড়াই অনলাইনে আয়ের জনপ্রিয় উপায় : আপনি কি অনলাইনে আয় করতে চান? আপনি যদি সত্যিই অনলাইনে টাকা আয় করতে চান তাহলে কোন রকম ইনভেস্ট ছাড়াই অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

বর্তমানে অনেক মানুষ ঘরে বসে অনলাইনের মাধ্যমে টাকা ইনকাম করেছেন। আপনার যদি উক্ত কাজের প্রতি আগ্রহ থাকে এবং ঘরে বসে কাজ করার মতো ইচ্ছা জাগে তাহলে আপনিও ভালো পরিমাণের টাকা আয় করতে পারবেন।

ইনভেস্ট ছাড়াই অনলাইন আয়ের জনপ্রিয় উপায়
ইনভেস্ট ছাড়াই অনলাইন আয়ের জনপ্রিয় উপায়

আশা করি উক্ত শিরোনাম দেখে বুঝতে পেরেছেন আজ আপনাদের সাথে আলোচনা করবো ইনভেস্ট ছাড়াই অনলাইনে ইনকাম করার সহজ উপায়। তার জন্য আপনাকে আমাদের এই পোস্ট সঠিক ভাবে মনযোগ সহকারে পড়তে হবে।

ইনভেস্ট ছাড়াই যদি অনলাইনের মাধ্যমে আয় করতে চান তাহলে আপনাকে অনেক বিষয় জানতে হবে। যেমন: কি কি বিষয় নিয়ে অনলাইনে কাজ করা যায় সেই সম্পর্কে আজ আমি আপনাদের দেখাবো। তাই সময় নষ্ট না করে নিচের অংশ গুলো অনুসরণ করুন।

অনলাইনে ইনকাম বাংলাদেশী সাইট

বর্তমানে অনলাইনে আয় করার জন্য বাংলাদেশ অনেক ধরণের সাইট রয়েছে। যার মাধ্যমে আপনি ঘরে বসে মোটা অঙ্কের টাকা আয় করতে পারবেন। আমি বাংলাদেশী সাইট আপনার সামনে তোলে ধরবো।

আপনারা বাংলাদেশে অনেক সাইটে কাজ করতে পারবেন তার মধ্যে সব চেয়ে জনপ্রিয় একটি ওয়েবসাইট হলো jit.com.bd এই ওয়েবসাইটে আপনি চাইলে পোস্ট শেয়ার করে আয় করতে পারবেন।

এছাড়া এই ওয়েবসাইটে আর্টিকেল লিখে আয় করতে পারবেন। এবং ওয়েবসাইটের লিংক শেয়ার করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

উপরিউক্ত কথা গুলো সত্যি এবং এই সাইটে কাজ করার জন্য আপকে কোন প্রকার ইনভেস্ট করতে হবে না বরং এখানে একাউন্ট খোললে আপনার রেজিস্ট্রেশন করার বোনাস প্রদান করা হয়। আপনি যদি জে আইটি ওয়েবসাইটে কাজ করেন তার জন্য আপনাকে একটি একাউন্ট তৈরি করতে হবে। উক্ত ওয়েবসাইটে একাউন্ট খোলা একদম সহজ।

আপনি দুই পদ্ধতিতে একাউন্ট খোলতে পারবেন। প্রথমতো, আপনার একটি ইমেইল একাউন্ট দিয়ে খোলতে পারবেন আর ২য়ত, আপনার ফেসবুক একাউন্টের মাধ্যমে একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন।

আমরা আপনাকে দেখাবো কি ভাবে এই সাইটে একাউন্ট খোলতে হয় এবং একাউন্ট খোলার লিংক আপনাদের দেওয়া হবে। আপনারা উক্ত লিংকে ক্লিক করে একটি একাউন্ট খোলে কাজ করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

জে আইটি ওয়েবাসইটে একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করার লিংক : https://blog.jit.com.bd/register

উক্ত লিংকে ক্লিক করে আপনাকে কিছু তথ্য পুরণ করতে হবে যেমন:

  • Name
  • Username
  • E-mail Address
  • Password
  • Confirm Password
  • Register

সকল তথ্য পুরণ করার পরে আপনার একটি একাউন্ট তৈরি হয়ে যাবে। তারপর আপনি সেখানে নিয়মিত আর্টিকেল লিখে টাকা আয় করতে পারবেন।

বাংলাদেশ ওয়েবসাইট থেকে কত টাকা আয় করতে পারবেন:

আমরা আপনাকে একটি ওয়েবসাইটের কথা বলেছি সেটি হলো “জে আইট” এই ওয়েবসাইটে কাজ করার কিছু নিয়ম আছে। সব চেয়ে মজার বিষয় হলো আপনি যদি এখানে একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করেন তার জন্য ২০ টাকা বোনাস পেয়ে যাবেন।

এছাড়া এই ওয়েবসাইট মুলত আর্টিকেল রাইটিং, পোস্ট শেয়ার, লিংক রেফারেল এর মাধ্যমে টাকা দিয়ে থাকে। আপনার লেখা আর্টিকেল গুলো এই ওয়েবসাইটে পাবলিশ হলে আপনি পোস্ট গুলো বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করে ভিউ বাড়াতে পারলে যেমন: একটি পোস্টে আপনি যদি ১০০০ টি ভিউ করাতে পারেন তবে আপনি পাবেন ৫০০/- টাকা।

এভাবে যদি আপনি প্রতি দিন ২-৩ টা করে আর্টিকেল লিখতে পারেন তবে প্রতি মাসে প্রায় ১০ হাজার থেকে ১৫ হাজার টাকা আয় করতে পারবেন।

ঘরে বসে মোবাইলে আয়

আপনি যদি ঘরে বসে মোবাইলে আয় করতে চান? তাহলে আপনার একটি স্মার্ট মোবাইল ফোন প্রয়োজন হবে। মোটামোটি কোয়ালিটির একটি মোবাইল থাকে তাহলে আপনি অনলাইনের মাধ্যমে ব্লগিং করে টাকা আয় করতে পারবেন।

ব্লগিং ছাড়া আরো অনেক ‍উপায় রয়েছে যার মাধ্যমে আপনি ঘরে বসে মোবাইলে আয় করতে পারবেন। যেমন: মোবাইল এপ, মোবাইলে গেম খেলে, ক্যাপচা কোড পূরণ করে ঘরে বসে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

আপনি যদি মোবাইল দিয়ে ব্লগিং করেন তবে আপনাকে একটি ব্লগ ওয়েবসাইট তৈরি করতে হবে। আর যদি মোবাইল এপ দিয়ে আয় করতে চান তাহলে আপনাকে এপ ডাউনলোড করে ইনস্টল করে কাজ করতে পারবেন কোন প্রকার ইনভেস্ট ছাড়াই।

ডাটা এন্ট্রি করে আয়

আপনি যদি ডাটা এন্ট্রি করে অনলাইনে আয় করতে চান? তাহলে আপনার কিছু বিষয় এর তথ্য জানতে হবে। তা হলো আপনার কিছু অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। যেমন: আপনাকে মোটামুটি ভাবে ইংরেজি জানতে হবে।

আপনি যদি ইংরেজি না পারেন তবে এটি করা সম্ভব হবে না। ডাটা এন্ট্রি করার জন্য আবারো অতিরিক্ত শিক্ষাগত যোগ্যতারও প্রয়োজন নেই। আপনার প্রয়োজন হবে টুকিটাকি ইংরেজি জানা আর কম্পিউটার টাইপিং স্পিড ভালো থাকা।

আমরা জানি বেশির ভাগ ডাটা এন্ট্রির কাজ মুলত দেশের বাহিরে হয়ে থাকে। তাই আপনার প্রয়োজন ইংরেজি চর্চা করা। এছাড়া মজার বিষয় হলো ডাটা এন্ট্রি করে আয় করার জন্য আপনাকে কোন প্রকার টাকা ইনভেস্ট করতে হবে না।

ডাটা এন্ট্রি করার সোর্স 

আমরা এখানে দেখাবো কি কি সোর্সের মাধ্যমে ডাটা এন্ট্রি করে অনলাইনে আয় করতে পারবেন কোন ইনভেস্ট ছাড়াই। আমি আগেই বলেছি এই কাজের জন্য আপনার প্রতিভা প্রয়োজন। বেশি বেশি ইংরেজি জানা আর কাম্পিউটার টাইপিং স্পিড।

ডাটা এন্ট্রি কাজের সোর্স কি রয়েছে তা আপনি এই পেজের মাধ্যমে জানতে পারবেন। তার জন্য আপনাকে নিচের অংশ গুলো মনযোগ দিয়ে পড়তে হবে।

ডাটা এন্ট্রির সোর্স কোন প্রকার ইনভেস্ট ছাড়াই

  • কপি থেকে পেস্ট করে আয়
  • ক্যাপচা এন্ট্রি করে আয়
  • বিভিন্ন কোম্পানিতে ডাটা এন্ট্রি ইনকাম
  • অডিও শুনে শুনে লেখা
  • মাইক্রোস জব ছোট ছোট কাজ করে আয়
  • ইমেজ থেকে টেক্সট ডাটা এন্ট্রির কাজ করে আয়

ক্যাপচা এন্ট্রি করে আয়

বর্তমানে অনলাইনের মাধ্যমে বিনা ইনভেস্টে ক্যাপচা এন্ট্রির কাজ করে টাকা আয় করতে পারবেন। আপনাকে শুধু মাত্র একটি ক্যাপচা এন্ট্রি ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করে নিলেই হবে।

আপনি যদি এই কাজটি প্রতি দিন ১-২ ঘন্ট করে সময় ব্যয় করেন তবে প্রতি দিন ৩০০-৫০০ টাকা আয় করতে পারবেন। এই কাজের জন্য আপনার প্রয়োজন হবে কম্পিউটার টাইপিং স্পিড।

কি উপায়ে ক্যাপচা এন্ট্রি করে আয় করবেন। এবং কোন ওয়েবসাইট গুলোর মাধ্যমে ক্যাপচা এন্ট্রি করবেন সেগুলোর কিছু লিংক আমাদের এই ওয়েবসাইটে দেওয়া হবে। তার জন্য আপনাকে নিচে দেওয়া অংশ গুলো ধাপে ধাপে দেখতে হবে।

  • 2Captcha
  • CaptchaTypers
  • Captcha2Cash

উক্ত ক্যাপচা ওয়েবসাইট ব্যবহার করে অনলাইনের মাধ্যমে টাকা আয় করতে পারবেন কোন প্রকার ইনভেস্ট ছাড়াই। তাই দেরি না করে আজই একটি একাউন্ট খোলে কাজ শুরু করতে পারেন।

ফেসবুকের মাধ্যমে অনলাইন আয়

উপরিউক্ত সকল কাজের চেয়ে জনপ্রিয় অনলাইন আয়ের মাধ্যম হলো ফেসবুক। আপনারা প্রতি দিন অযথা ফেসবুকে সময় নষ্ট না করে আয় করতে পারবেন।

আপনার প্রশ্ন হতে পারে ফেসবুক দিয়ে আবার আয় করবো কিভাবে? এই প্রশ্নটা হতেই পারে তবে আমি এই প্রশ্নের উত্তর দিতে প্রস্তুত। তবে শুনুন ফেসবুক দিয়ে কিভাবে অনলাইন আয় করার যায়।

মনে করুন আপনার একটি ওয়েবসাইট রয়েছে বা ইউটিউব চ্যানেল রয়েছে উক্ত পোস্ট বা ভিডিও গুলো যদি ফেসবুকে শেয়ার করেন তবে সেখান থেকে আপনার ভিউ হবে এবং ভিউ হওয়ার ফলে আপনার ইনকাম হবে।

এছাড়াও আপনি ফেসবুকের মাধ্যমে আয় করতে পারবেন ফেসবুক পেজ বা গ্রুপ খুলে। আরো উপায় রয়েছে তা হলো আপনার যদি ১০-১৫ টি ফেক আইডি থাকে সেগুলো বিক্রি করে আয় করতে পারবেন।

অনলাইনে ভিডিও দেখ আয়

আপনারা কি জানেন বর্তমান সময়ে ভিডিও দেখে আয় করা যায়? যদি না জানেন তবে আমি আপনাকে জানাবো কোন প্রকার ইনভেস্ট ছাড়াই অনলাইনে ভিডিও দেখে আয় করতে পারবেন।

আপনার মনে প্রশ্ন হতে পারে ভিডিও দেখে কি আয় করা যায়? হ্যা যায়। আপনি ভিডিও ঘরে বসে আয় করতে পারবেন। তার জন্য আপনাকে জানতে হবে কি উপায়ে ভিডিও দেখে আয় করতে পারবেন। সে বিষয় নিয়ে আমি আপনাদের সাথে আলোচনা করব। এবং আপনাকে পরিচয় করিয়ে দিবো কোন ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ভিডিও দেখে টাকা আয় করা সম্ভব।

তার জন্য আপনাকে আমাদরে এই পোস্টটি মনযোগ দিয়ে পড়তে হবে। ভিডিও দেখে আয় করার জন্য কি কি ওয়েবসাইট ও অ্যাপ ব্যবহার করা  হয় তার নিম্নরূপঃ

  • Irazoo
  • Clipclaps
  • Watch & Earn
  • Inbox Dollar
  • Vid Cash
  • Vid Money

উপরিউক্ত এপ গুলো মাধ্যমে আপনি ইনভেস্ট ছাড়াই অনলাইনে আয় করতে পারবেন।

শেষ কথাঃ

আমাদের এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে অজানা অনেক তথ্য সঠিক ভাবে বুঝতে পারছেন আমরা আশা করি। আপনি যদি আমাদের এই ওয়েবসাইটের লেখা গুলো মনযোগ দিয়ে পড়ে থাকেন তবে ইনভেস্ট ছাড়া অনলাইনে আয় করার সমাধান পেয়ে গিয়েছেন।

আমাদের এই পোস্ট যদি আপনার ভালো লাগে তবে শেয়ার করতে ভুলবেন না। আমাদের এই ওয়েবসাইটে অনলাইন আয়ের আরো নতুন সব তথ্য জানতে ভিজিট করুন ধন্যবাদ।

1 thought on “ইনভেস্ট ছাড়া অনলাইনে আয়ের জনপ্রিয় উপায় [বিস্তারিত এখানে]”

Leave a Comment