ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো অনলাইনে?

ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো অনলাইনে?

আমরা যারা অনলাইন জগতে রয়েছি, তারা একবার না একবার ফ্রিল্যান্সার নাম শুনেছি। তো বন্ধুরা ফ্রিল্যান্সার আসলে কি? ফ্রিল্যান্সার কিভাবে করতে হয়? ফ্রিল্যান্সার করে মাসিক কত টাকা আয় করা যায়? এই ধরনের হাজারো প্রশ্ন রয়েছে, যারা আমরা ফ্রিল্যান্সার সম্পর্কে একেবারেই অজ্ঞ! যারা ফ্রিল্যান্স সম্পর্কে বিস্তারিত নলেজ অর্জন করতে চান! তাদের জন্য আর্টিকেল এটি খুবই উপযোগী ।

কারণ আজকের এই আর্টিকেলে আমরা সাধারণত, ফ্রিল্যান্সার বিষয় নিয়ে আলোচনা করব। যদিও ফ্রিল্যান্সার সম্পর্কে বলতে শুরু করলে শেষ করা যাবে না। তাই আমরা স্বল্প বা সংক্ষিপ্ত আকারে ফ্রিল্যান্সার সম্পর্কে জানব। যাতে করে ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার হিসেবে আপনি, নিতে চান কিনা সেটা ডিসাইড খুব সহজে করতে পারবেন। তো চলুন বন্ধুরা কথা না বাড়িয়ে এখন আমরা, ফ্রিল্যান্সিং বিষয়টি নিয়ে বিস্তারিত জানার চেষ্টা করি।

ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো অনলাইনে?
ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো অনলাইনে?

কনটেন্ট সূত্র পত্র

  • ফ্রিল্যান্সিং বাংলাদেশ থেকে করার নিয়ম
  • ফ্রিল্যান্সিং কেন করব? ফ্রিল্যান্সিং করা কেন প্রয়োজন?
  • ফ্রিল্যান্সিং আউটসোর্সিং হিসেবে করা যাবে?
  • কিভাবে ফ্রিল্যান্সিং একাউন্ট খুলব?
  • ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো অনলাইনে?
  • ফ্রিল্যান্সিং শিখতে কত সময় লাগে?
  • ফ্রিল্যান্সিং শিখুন অনলাইনে সম্পূর্ণ ফ্রী?

ফ্রিল্যান্সিং বাংলাদেশ থেকে করার নিয়ম?

ফ্রিল্যান্সিং বাংলাদেশঃ এখন হয়তোবা অনেকেই শুরুতে বলতে পারেন যে, ফ্রিল্যান্সিং বাংলাদেশ থেকে করা সম্ভব কিনা? যদিও ফ্রিল্যান্সিং এতটা গুরুত্বপূর্ণ বর্তমান সময়ে, যেটার তাৎপর্য প্রচুর পরিমাণে রয়েছে! বর্তমান সময়ে অন্যান্য দেশের চেয়ে বাংলাদেশি ফ্রিল্যান্সারগণ বেশি! যদিও সংখ্যার হিসেব করে নয়, তাদের চাহিদা বৈদেশিক লোকেরা সাধারণত বাংলাদেশি ফ্রিল্যান্সারদের কাছে,

তাদের কাজকর্মগুলো করাতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে। আর এই ফ্রিল্যান্সিং এর জন্যই বাংলাদেশ আজ প্রায় সব দেশের লোক চেনে। এখন আপনি যদি তবুও বলেন, ফ্রিল্যান্সিং আসলে বাংলাদেশ থেকে সম্ভব কিনা! হ্যাঁ বন্ধুরা অবশ্যই বাংলাদেশ থেকে যে কেউ চাইলে ফ্রিল্যান্সিং করতে পারবে! আপনারা ফ্রিল্যান্সিং ওয়েবসাইটে গিয়ে, খুব সহজে একটি অ্যাকাউন্ট তৈরি করে বাংলাদেশ বসেই, ফ্রিল্যান্সিং করতে পারবেন খুব সহজে!

ফ্রিল্যান্সিং কেন করব? ফ্রিল্যান্সিং করা কেন প্রয়োজন?

ফ্রিল্যান্সিং কেন করবঃ বন্ধুরা প্রয়োজন অপারেশনের বিষয়টি আসলে না। আপনি যদি ইচ্ছুক থাকেন তাহলে ফ্রিল্যান্সিং করতেই পারেন আবার নাও করতে পারেন। কথাটি হলো ফ্রিল্যান্সিং করা ভালো কিংবা খারাপ কোনটি! দেখুন অন্যান্য পেশার আরো অনেক ধরনের কাজ অনলাইনে পাওয়া যায়! তবে তার ভিতরে ফ্রিল্যান্সিং অন্যতম একটি পেশা ইনকাম করার জন্য। এবং অন্যান্য পেশার চেয়ে ফ্রিল্যান্সিং হল মুক্ত পেশা।

 

যেখানে আপনি আপনার ইচ্ছামত কাজ করে ইনকাম করার সুযোগ পাবেন। এক কথায় ফ্রিল্যান্সিং স্বাধীন বা মুক্ত পেশা। এবং অন্যান্য কাজের চেয়ে ফ্রিল্যান্সিং সবচেয়ে উপযোগী, ও বর্তমান সময়ে জনপ্রিয় এর মধ্যে অন্যতম হলো ফ্রিল্যান্সিং পেশা। তাছাড়া ফ্রিল্যান্সিং করে অনলাইনে প্রচুর পরিমাণে টাকা ইনকাম করা সম্ভব। অনলাইনে অন্যান্য পদ্ধতি অবলম্বন করে ইনকাম করা গেলেও, আপনারা ফ্রিল্যান্সিং করে সবচেয়ে বেশি আয় করতে পারবেন।

 

ফ্রিল্যান্সিং আউটসোর্সিং হিসেবে করা যাবে?

ফ্রিল্যান্সিং আউটসোর্সিংঃ দেখুন অনলাইনে ফ্রিল্যান্সিং এবং আউটসোর্সিং জিনিসটা আলাদা। ফ্রিল্যান্সিং আউটসোর্সিং আলাদা হলেও, অনেকেই প্রশ্ন করে ফ্রিল্যান্সিং-আউটসোর্সিং হিসেবে করা সম্ভব কিনা? হ্যাঁ অবশ্যই আপনি চাইলেই, ফ্রিল্যান্সিং-আউটসোর্সিং হিসেবে করতে পারবেন!

তবে ফ্রিল্যান্সিং কাজ গুলো করার জন্য, আপনি একটি টাইমলাইন সেট করে নিবেন। যেমন ধরুন আপনি সকাল ছয়টা থেকে দুপুর 12 টা পর্যন্ত সময় দিবেন ফ্রিল্যান্সিং এর জন্য। কিংবা দুপুর 2 টা থেকে আপনি রাত ছয়টা পর্যন্ত কিংবা আটটা পর্যন্ত সময় ব্যয় করবেন, এই ফ্রিল্যান্সিং এর জন্য। যদি অবধারণ হিসেবে বলেছি আপনারা একটু নিজের মতো সাজিয়ে নিবেন, যাইহোক আপনারা ফ্রিল্যান্সিং হিসেবে অবশ্যই আউটসোর্সিং করতে পারবেন আশা করি।

কিভাবে ফ্রিল্যান্সিং একাউন্ট খুলব?

ফ্রিল্যান্সিং একাউন্টঃ যদিও এতক্ষণ আমরা ফ্রিল্যান্সিং বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করলেও। অনেকেই বলতে পারেন যে ফ্রিল্যান্সিং একাউন্ট কিভাবে খুলব? কিভাবে ফ্রিল্যান্সিং একাউন্ট খুলব ও কোথা থেকে ফ্রিল্যান্সিং একাউন্ট খুলতে হয়? বন্ধুরা ফ্রিল্যান্সিং একাউন্ট খোলার জন্য অনেক ধরনের প্লাটফর্ম, অনলাইনে রয়েছে। তার মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় একটি প্লাটফর্ম হল freelancer.com আপনারা চাইলেই কিন্তু এই প্লাটফর্মে খুব সহজ একটি অ্যাকাউন্ট তৈরি করে নিতে পারবেন।

এবং আপনার ইচ্ছা অনুযায়ী, freelancer.com প্ল্যাটফর্ম এর মাধ্যমে, একটি ফ্রিল্যান্সিং একাউন্ট খুলে, অর্থাৎ রেজিস্ট্রেশন করে এই প্লাটফর্মে ফিল্যান্সিং করতে পারেন। এই প্লাটফর্মে রেজিস্ট্রেশন করার জন্য তেমন কিছু প্রয়োজন হয় না, আপনার পার্সোনাল কিছু ইনফরমেশন দিয়ে খুব সহজে এখানে, আপনারা একটি অ্যাকাউন্ট তৈরি করে নিতে পারবেন। কিভাবে ফ্রিল্যান্সিং একাউন্ট খুলব? আশাকরি প্রশ্নটির উত্তর পেয়েছেন!

ফ্রিল্যান্সিং কাজ করার জন্য কিসের প্রয়োজন?

ফ্রিল্যান্সিং কাজঃ প্রশ্ন আসাই স্বাভাবিক ফ্রিল্যান্সিং কাজ করার জন্য কিসের প্রয়োজন হয়? যদি এই প্রশ্নটিই আপনার ভিতরে আসে তাহলে, প্রথমত ফ্রিল্যান্সিং কাজ যতটা সহজ ঠিক ততটাই কঠিন! বিষয় হচ্ছে ফ্রিল্যান্সিং কাজের জন্য কি কি দক্ষতা প্রয়োজন? অথবা এই দক্ষতা গুলো কি কি কিভাবে করতে হয়? ফ্রিল্যান্সিং করার জন্য বিভিন্ন ধরনের কাজ রয়েছে! আপনি চাইলে যেকোন একটি দক্ষতা কাজে লাগিয়ে ফ্রিল্যান্সিং করতে পারবেন সহজেই!

 

বিশেষ করে ফ্রিল্যান্সিং করার জন্য, সাধারণ যে বিষয়গুলো রয়েছে। কিংবা আপনি যে বিষয়টি দক্ষতা অর্জন করে, খুব সহজে ফ্রিল্যান্সিং করতে পারবেন। তার কিছু তালিকা নিচে দেওয়া হল।

  • টেকনোলজি ও প্রোগ্রামিং
  • রাইটিং ও ট্রান্সলেশন
  • ডিজাইন
  • ডিজিটাল মার্কেটিং
  • ভিডিও, ফটো ও ইমেইজ
  • বিজনেস
  • মিউজিক ও অডিও
  • মার্কেটিং ব্র‍্যান্ডিং ও সেলস
  • সোশ্যাল মিডিয়া
  • একাউন্ট তৈরি ও প্রোফাইল বিল্ডিং

উপরোক্ত, কাজের যেকোনো একটি কাজ আপনি শিখে কিংবা দক্ষতা অর্জন করে, ফ্রিল্যান্সিং এ যোগদান দিতে পারেন। হ্যাঁ বন্ধুরা আপনারা ঠিকই শুনেছেন, উপরোক্ত যেকোনো বিষয়টি কাজে লাগিয়ে। ফ্রিল্যান্সিং কাজ করা সম্ভব। তাই আপনারা চাইলেই উপরোক্ত যেকোনো একটি দক্ষতা নিজের ভেতরে কাজে লাগিয়ে, ফ্রিল্যান্সিং করতে পারবেন আশা করি। আশাকরি ফ্রিল্যান্সিং কাজ করার জন্য কিসের প্রয়োজন? বিষয়টি নিয়ে আর কোন সমস্যা নেই!

ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো অনলাইনে?

ফ্রিল্যান্সিংঃ যদিও এতক্ষণে নিশ্চয়ই বুঝতে পেরেছেন ফ্রিল্যান্সিং কাজ খুব সহজ, আবার খুব কঠিন সেটা নয়। কথা হল ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখব আমরা। ফ্রিল্যান্সিং শেখার জন্য অনলাইনে প্রচুর পরিমাণে অপশন আপনি সহজে খুঁজে পাবেন। কারণ অনলাইনে ফ্রিল্যান্সিং শেখার অনেক ধরনের কোর্স করানো হয়। আপনারা সেই কোর্স কাজে লাগিয়ে ফ্রিল্যান্সিং খুব সহজে করতে পারবেন।

 

ফ্রিল্যান্সিং শিখতে কত সময় লাগে?

 

ফ্রিল্যান্সিংঃ আপনি ফ্রিল্যান্সিং কোর্স কিংবা, অন্য কোন পদ্ধতিতে খুব সহজে ফ্রিল্যান্সিং শিখতে পারবেন। তবে এখন প্রশ্ন হলো ফ্রিল্যান্সিং শিখতে কত সময় লাগে? ফ্রিল্যান্সিং শিখতে কি 6 মাস 1 বছর কিংবা আরো বেশি সময় প্রয়োজন! বন্ধুরা ফ্রিল্যান্সিং বিষয়টি নিয়ে যদি আপনারা উপরোক্ত বিষয়ে, ভালোভাবে আর্টিকেলটি পড়ে থাকেন তাহলে! হয়তোবা লানসিং শিখতে কত সময় লাগে প্রশ্নটিই করবেন না?

 

কেননা ফ্রিল্যান্সিং করার জন্য বিভিন্ন ধরনের দক্ষতা প্রয়োজন। আপনি ওই দক্ষতাগুলো কাজে লাগিয়ে খুব সহজে ফ্রিল্যান্সিং করতে পারবেন। তবে কথা হল, এই দক্ষতাগুলো আপনি যদি 1 দিনে কভার করে ফেলতে পারেন, তাহলে কিন্তু আপনার সময় লাগলো মাত্র একদিন। তো আপনি একদিনে কিন্তু ফ্রিল্যান্সিং শিখে নিলেন। সুতরাং ফ্রিল্যান্সিং শেখার জন্য সময় কত লাগবে, এটি নির্ভর করবে আপনার নিজের উপর। আপনি চাইলে ফ্রিল্যান্সিং কোর্স দুই থেকে তিন মাসের শেষ করতে পারবেন।

 

ফ্রিল্যান্সিং শিখুন অনলাইনে সম্পূর্ণ ফ্রী?

 

ফ্রিল্যান্সিং শিখুনঃ ফ্রিল্যান্সিং শেখা আহামরি কোনো কাজ নয়। ফ্রিল্যান্সিং শেখার জন্য অবশ্যই দক্ষতা প্রয়োজন। এই দক্ষতা অর্জন করার জন্য অনলাইনে অনেক ধরনের কোর্স করানো হয়। আপনারা চাইলেই অনলাইনে বিভিন্ন কোর্সের মাধ্যমে ফ্রিল্যান্সিং শিখতে পারেন। তবে কথা হলো ফ্রিল্যান্সিং অনলাইনে সম্পুর্ন ফ্রী শেখা যায়। না বন্ধুরা এটি নিয়ে, আপনার একটু সচেতন থাকা দরকার বলে মনে করি।

যদিও অনলাইনে ফ্রিল্যান্সিং খুবই জনপ্রিয় একটি পেশা ইনকাম করার জন্য। এ কারণেই প্রতারকেরা অনেক সময় বিভিন্ন ধরনের অফার দিয়ে থাকে, তার মধ্যে একটি হলো ফ্রিল্যান্সিং শিখুন অনলাইনে সম্পুর্ন ফ্রী? যদিও মাঝে মাঝে রিয়েল কিছু অফার আসে, তবে সেগুলো আপনার আমাদের মত লোকের জন্য নয়! যারা অলরেডি এ বিষয়টি নিয়ে আগে থেকেই কোন কোর্স শেষ করেছে। তাদের জন্য হয়তোবা আসতে পারে। তাই অবশ্যই খেয়াল রাখবেন ফ্রিতে কেউ আপনাকে কখনো ফ্রিল্যান্সিং শেখাবে না।

সুপ্রিয় বন্ধুগণ, এখন আমরা ফ্রিল্যান্সিং বিষয়টি নিয়ে অনেক বিষয়ে জেনেছি। আর্টিকেলটি পড়ার জন্য সবাইকে অসংখ্য ধন্যবাদ। যদি ফ্রিল্যান্সিং বিষয়ে কোন প্রশ্ন অথবা মতামত থাকে, তাহলে অবশ্যই সেটা কমেন্ট করতে একদমই ভুলবেন না। সংক্ষিপ্ত আকারে আপনাদেরকে ফ্রিল্যান্সিং সম্পর্কে বেশ কিছু ধারনা দেয়ার চেষ্টা করেছি। সুতরাং সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন এবং নিরাপদে থাকবেন। আশা করি আবার অন্য কোন আর্টিকেলে দেখা হবে। সবাইকে আবারো ধন্যবাদ।

Leave a Comment