ডাটা এন্ট্রি করে আয় দৈনিক $১০ [বিস্তারিত এখানে]

হ্যালো! বন্ধুরা আজকে আপনাদের সাথে যে বিষয় নিয়ে আলোচনা করব সেটি হলো ডাটা এন্ট্রি করে আয়। আপনি যদি ডাটা টাইপিং কাজ করে দৈনিক $১০ ডলার ইনকাম করতে চান তবে আপনি সঠিক ওয়েবসাইটে প্রবেশ করেছেন।

বর্তমানে বিশ্বে অনলাইনের মাধ্যমে এবং অফলাইনের মাধ্যমে ডাটা এন্ট্রির চাকরি আছে। আপনি যদি ডাটা টাইপ করে আয় করতে চান তবে আমাদের এই সাইটের মাধ্যমে বিস্তারিত তথ্য জানতে পারবেন।

ডাটা এন্ট্রি করে আয়
ডাটা এন্ট্রি করে আয় কার সহজ ওয়েবসাইট এখানে

বর্তমানে যারা চাকরি না পেয়ে ঘরে বসে বেকারত্ব জীবন যাপন করছেন তাদের জন্য এটি একটি সুখবর। অযথা চাকরির পিছনে না ঘুরাঘুরি করে আপনি চাইলে ডাটা টাইপিং কাজ শিখে আপনিও মাসে অনেক টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

আমরা জানি অনলাইনে ডাটা টাইপ এর কাজ করে ইনকাম করা অনেক সহজ। ডাটা টাইপ করে কিভাবে টাকা ইনকাম করা যায় সে বিষয়ে আপনাদের সহজ ভাষায় বোঝানো হবে।

আপনি যদি আমাদরে এই পেজের পুরো আর্টিকেল মনযোগ দিয়ে পড়েন তবে আপনিও ডাটা টাইপিং করে ইনকাম করতে পারবেন।

ডাটা এন্ট্রি কি?

ডাটা এন্ট্রি হলো কোন কম্পিউটার এর মাধ্যমে নির্দিষ্ট কোন ডাটা এক এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় ডাটা ইনপুট করা কে বুঝায়।

তথ্য সংরক্ষ এর কাজ গুলো হতে পারে কোন লেখা, কম্পিউটার এর প্রোগ্রামিং ডাটা বা কোন একটি এক্সেল শীট সংরক্ষণ করা ইত্যাদি কাজ গুলো বুঝায়।

ডাটা এন্ট্রি করার জন্য কি করতে হবে?

বর্তমান বিশ্বে অধিকাংশ মানুষ তথ্য টাইপিং কাজের সাথে জরিত। উপরিউক্ত কাজ করার জন্য বিশেষ ডিগ্রী ধারী ব্যক্তি হতে হয় না। তবে আপনি যদি এইচএসসি পাস থাকেন তবে আপনিও ডাটা টাইপ কাজ করতে পারবেন। এছাড়া কম্পিউটারে টাইপিং স্পিট মোটামোটি ভালো থাকতে হবে।

আপনারা যদি দেশের বাহিরে অনলাইনে ডাটা এন্ট্রির কাজ করতে চান তবে আপনার ইংরেজি পড়ার চর্চা করতে হবে। কারণ দেশের বাহিরে বাংলা ভাষা চলে না। আপনি যদি ইংরেজি জানেন তবে ডাটা এন্ট্রি কাজ আপনার কাছে পানির মতো সহজ লাগবে।

ডাটা এন্ট্রি করার জন্য অনলাইনে অনেক মাধ্যম রয়েছে যার ফলে আপনি টাকা ইনকাম করতে পারবেন। আজের এই পোস্টে আপনাদের জানাবো কি কি মাধ্যম অনুসরণ করে কাজ শুরু করতে পারবেন। তার জন্য আপনি এই পোস্টের পুরো আর্টিকেল মনযোগ সহকারে পড়ুন।

ডাটা এন্ট্রি করার সোর্স 

আমরা এই নিবন্ধের মাধ্যমে আপনাকে জানবো কি কি সোর্স অনুসরণ করে অনলাইনে কাজ করতে পারবেন। প্রথমেই বলেছি ডাটা এন্ট্রি করা জন্য আপনার বিশেষ কোন শিক্ষাগত যোগ্যতা প্রয়োজন নেই।

শুধু টুকিটাকি ইংরেজি জানলেই হবে। উপরিউক্ত কাজ গুলো অনেক সহজ এবং ডাটা এন্ট্রির অনেক ওয়েবসাইট রয়েছে। আমি উক্ত ওয়েবসাইট গুলো আপনাকে ধাপে ধাপে দেখাবো।

ডাটা এন্ট্রির সোর্সঃ

  • কপি থেকে পেস্ট
  • ক্যাপচা এন্ট্রি
  • বিভিন্ন কোম্পানিতে ডাটা এন্ট্রি
  • অডিও শুনে শুনে লেখা
  • ই-মেইল প্রসেসিং
  • মাইক্রোস জব
  • কাস্টমাইজড রিপোর্ট তৈরি করা
  • ইমেজ থেকে টেক্সট ডাটা এন্ট্রির কাজ

(০১) কপি থেকে পেস্ট 

কপি থেকে পেস্ট করা একদম সহজ। এই কাজটি যে কোন লোক করতে পারে শুধু মাত্র একটি চাপ দিয়েই। যেমন: কপি করার (কি-বোর্ড সংক্ষেপ Ctrl+C) এবং পেস্ট করার (কি-বোর্ড সংক্ষেপ Ctrl+V)।

এই কপি-পেস্ট এর কাজ হলো একটি ফাইল থেকে ডাটা কপি করে অন্য একটি ফাইলে পেস্ট করা। এই কাজটি আপনাকে করতে বলা হবে এম এস ওয়ার্ড ডকুমেন্টে বা এক্সেল শীটে।

(০২) ক্যাপচা এন্ট্রি 

বর্তমানে অনলাইনের মাধ্যমে লোকেরা এ কাজের পাশা পাশি ক্যাপচা এন্ট্রি কাজের সাথে লিপিবদ্ধ। উক্ত ক্যাপচা এন্ট্রির কাজও ডাটা টাইপিং কাজের মধ্যে পরে।

এটি একদম সহজ একটি কাজ এবং এটি করতে আপনার কোন প্রকার টাকা খরচ করতে হবে না বিনামূল্যে একটি ওয়েবসাইটে গিয়ে রেজিস্ট্রেশন করলেইন অনলাইনে ক্যাপচা এন্ট্রি করে আয় করতে পারবেন।

এই ক্যাপচা এন্ট্রির কাজ নিজের ঘরে বসে অল্প সময় ব্যয় করে করা যায়। তবে উক্ত কাজটি করার জন্য আপনার কম্পিউটারে টাইপিং স্পিড দ্রুত হতে হয়।

আপনি যদি টাইপিং এ ভালো পারেন তবে এ কাজে প্রতি দিন ২-৩ ঘন্টা কাজ করে প্রতি মাসে প্রায় ২০,০০০/- (বিশ হাজার) টাকা অনলাইন ইনকাম করতে পারবেন।

কি কি ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ক্যাপচা এন্ট্রি করতে পারবেন তার নিম্নরূপঃ

  1. Kolotibablo
  2. 2Captcha
  3. CaptchaTypers
  4. MegaTypers
  5. Captcha2Cash

উপরিউক্ত ওয়েবসাইট ছাড়াও আরো অনেক সাইট আছে সেখানে আপনি ক্যাপচা এন্ট্রি করে ইনকামে করতে পারবেন। উক্ত মাধ্যম ছাড়াও আরো অনেক সোর্স রয়েছে যার ফলে কাজ করা যায়। তবে চলুন আরো বিস্তারিত জানতে নিচের অংশ দেখা যাক।

(০৩) বিভিন্ন কোম্পানিতে ডাটা এন্ট্রি 

বর্তমানে বিশ্বে অধিক পরিমাণের ওয়েবসাইট রয়েছে। উক্ত ওয়েবসাইট গুলো বিভিন্ন কোম্পানির ডাটা এন্ট্রি কাজের জন্য এড দেখায়। ঐ সব ওয়েবসাটের মাধ্যমে প্রবেশ করে কাজ সংগ্রহ করা যায়।

তেমনি freelancer.com.bdওয়েবসাইটের হলো ডাটা এন্ট্রি কারার মতো একটি ওয়েবসাইট। এই ওয়েবসাইটে হাজার হাজার  কাজ পাওয়া যায়। এই ওয়েবসাইটে প্রতিদিন অনেক সংখ্যক মানুষ কাজ করে।

আপনি যদি উপরিউক্ত ওয়েবসাইটে ডাটা এন্ট্রির কাজ শুরু করতে চান তবে নিজের নামে একটি একাউন্ট খুলে এখানে  কাজ করতে পারেন।

আরো পড়ুনঃ

অনেকে freelancer.com.bd এর সাহায্যে অনলাইনে কাজ করে লক্ষ লক্ষ টাকা ইনকাম করছে। আপনি যদি আগ্রহী হয়ে থাকেন তবে আপনিও এ ওয়েবসাইটে রেজিস্ট্রেশন করতে পারেন। এবং একজন ডাটা টাইপিং অপারেটর হিসেবে কাজ করতে পারেন।

উপরিউক্ত https://www.freelancer.com.bd ওয়েবসাইট ছাড়াও আরো অনেক ওয়েবসাইট রয়েছে যার মাধ্যমে আপনি কাজ করতে পারবেন। যেমন: Fiverr, flexjobs, Upwork ইত্যাদির মাধ্যমে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

(০৪) অডিও শুনে শুনে লেখা

অডিও শুনে শুনে লেখার কাজটি অনেক সহজ তবে এই কাজের ইনকাম অনেক কম। এ কাজের জন্য আপনাকে আগের রেকর্ডকৃত কয়েকটি অডিও ফাইল প্রদান করা হবে সেই অডিও শুনে শুনে আপনাকে ডাটা এন্ট্রি করতে হবে।

উপরিউক্ত অডিও গুলো শুনতে হবে, এম এস ওয়ার্ড ফাইলে ইংরেজি ভাষাতে টাইপিং করতে হবে। আপনি যদি অডিও শুনে শুনে ডাটা এন্ট্রি করতে চান তবে অডিওটি খুব মনোযোগ সহকারে আপনাকে শুনতে হবে।

অডিও শুনে কাজ করার জন্য আপনার প্রয়োজন কানে শোনার দক্ষতা যা সকল মানুষের ক্ষেত্রে থাকে না। এছাড়া আপনাকে ইংরেজি ভাষার প্রতি অনেক গুরুত্ব দিতে হবে। উপরের কথা গুলো অনসরণ করলে আপনি সহজেই অডিও শুনে ডাটা এন্ট্রির কাজ করতে পারবেন।

(০৫) ই-মেইল প্রসেসিং

বর্তমানে ইমেইল প্রসেসিং একটি জনপ্রিয় ডাটা এন্ট্রির কাজ। ইমেইল প্রসেসিং জবস ডাটা এন্ট্রির কাজে একটি সহজ প্ল্যাটফর্ম এখানে আপনার ইমেইলে আপনাকে অনেক ওয়েবসাইটের লিংক দেওয়া হবে।

আপনার কাজ হবে এই সকল লিংক গুলোতে ক্লিক করতে হবে এবং প্রতিটি ওয়েবসাইটে যেতে হবে এবং প্রতিটি ওয়েবসাইটে অন্তত ৩০-৪০ সেকেন্ড এর জন্য থাকতে হবে এবং টাকা প্রদান করতে হবে।

এছাড়া সকল ওয়েবসাইটের বিষয় বস্তু খুজে বের করে ইমেইল চেক করতে একটি এক্সেল শীট দেওয়া হবে সেখানে তালিকা তৈরি করে প্রতিদিন শত শত ইমেল প্রসেসিং করতে হবে।

আপনি যখন হাজার হাজার ইমেল প্রসেসিং এক্সেল শীটে শ্রেণি ভুক্ত করতে পারবেন তখন অনেক টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

ইমেইল প্রসেসিং এর কাজ মুলত Upwork এ করা হয়। আপনি যদি এই ওয়েবসাইটে আগ্রহী হন তবে আজ থেকেই ই-মেইল প্রসেসিং ডাটা এন্ট্রি শুরু করতে পারেন।

(০৬) মাইক্রো জব

যারা কম্পিউটার টাইপিং বিষয়ে চাকরি খুঁজছেন তাদের জন্য মাইক্রো জব অন্যতম ভুমিকা পালন করে ডাটা এন্ট্রির কাজের জন্য। মাইক্রো জবের ওয়েবসাইট গুলোতে আপনি একজন ডাটা এন্ট্রি কর্মী হিসেবে যোগদান করতে পারেন।

উপরিউক্ত কাজের জন্য আপনার অতিরিক্ত শিক্ষাগত যোগ্যতার ও অভিজ্ঞতার প্রয়োজন হয় না। এই কাজটি অনেক সহজ এবং ইনকাম ও অনেক বেশি।

মাইক্রো জব এর কাজ মুলত Upwork এ করা হয়। আপনি যদি এই ওয়েবসাইটে আগ্রহী হন তবে আজ থেকেই মাইক্রো জব ডাটা এন্ট্রি শুরু করতে পারেন।

(০৭) কাস্টমাইজড রিপোর্ট তৈরি করা

কাস্টমাইজড রিপোর্ট তৈরি কাজও অনেক সহজ। এই কাজটি আপনাকে একজন ডাটা এন্ট্রি অপারেটর হিসেবে আপনার ক্লায়েন্টের দেওয়া বিভিন্ন রিপোর্ট হতে পারে।

যেমন: এম এস এক্সেল শীট, এম এস পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশন, চার্ট ইত্যাদির মাধ্যমে কাস্টমাইজড রিপোর্ট তৈরি করে দিতে হবে।  উপক্ত কাস্টমাইজড এর রিপোর্ট তৈরি করে মাসে অন্তত ৫০,০০০/- (পঞ্চাশ হাজার) টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

কাস্টমাইজড রিপোর্ট এর কাজ খুজতে আপনাকে আপনাকে এখানে ক্লিক করতে হবে। আপনি যদি এই ওয়েবসাইটে আগ্রহী হন তবে আজ থেকেই কাস্টমাইজড রিপোর্ট এর ডাটা এন্ট্রির কাজ শুরু করতে পারেন।

(০৮) ইমেজ থেকে টেক্সট ডাটা এন্ট্রির কাজ

এই কাজের জন্য আপনাকে একটি ছবি প্রদান করা হবে। ছবিটি হইতে পারে কোন স্ক্রিনশট বা স্ক্রিনশট ছাড়া। আপনাকে সেই ছবি থেকে ভালো করে পড়ে এম এস ওয়ার্ড ডকুমেন্টে টাইপিং করতে হবে।

তবে আপনাকে মনে রাখতে হবে এই ছবির লেখা গুলো অনেকটা ক্যাপচা কোডের মতো অস্পষ্ট থাকবে। সেটি আপনি সঠিক ভাবে ওয়ার্ড ফাইলে লিখতে হবে।

উপরিউক্ত সোর্স ছাড়া আরো অনেক সোর্স রয়েছে যার মাধ্যমে আপনার এন্ট্রির কাজ করতে পারবেন। তবে আমরা যে সোর্স গুলো আপনাকে দেওয়া হয়েছে সেগুলো অনেক সহজ এবং এই সবে কাজ করলে অনেক টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

আজ এই পর্যন্তই রইলো। আমরা আশা করি ডাটা এন্ট্রির মাধ্যমে কিভাবে ইনকাম করবেন সে বিষয়ে অনেক কিছু ধারনা নিতে পেরেছেন।

আমাদের এই আর্টিকেলটি পড়ে যদি ভালো লাগলে তাহলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন না। অনলাইন জগতের অনলাইন বিষয়ক কাজ শিখতে চাইলে আমাদের এই ওয়েবসাইট নিয়মিত ভিজিট করুন ধন্যবাদ।

Leave a Comment